• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮
Bangla Bazaar
Bongosoft Ltd.

খুবিতে অনলাইন পরীক্ষায় শতভাগ উপস্থিতি


খুবি প্রতিনিধি | বাংলাবাজার প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১, ১০:০৭ পিএম খুবিতে অনলাইন পরীক্ষায় শতভাগ উপস্থিতি
ছবি: সংগৃহীত

করোনা মহামারির কারণে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ডিসিপ্লিন ও ইনস্টিটিউটের স্নাতক, স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর শ্রেণির প্রথম বর্ষের প্রথম টার্মের ফাইনাল পরীক্ষা রবিবার ( ১২ সেপ্টেম্বর)  শুরু হয়েছে।  শতভাগ শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন। 

সকাল ১০টায় উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্কুল ও ডিসিপ্লিনে যান এবং অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণ কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করেন। উপাচার্য কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনে অনলাইনে উত্তরপত্র আপলোড কার্যক্রমও দেখেন। পরে তিনি বিভিন্ন  স্কুলের ডিন অফিসে যান এবং আপলোডসহ পরীক্ষার অন্যান্য কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত হন। সকল স্কুল ও ডিসিপ্লিন থেকে জানানো হয় পরীক্ষার্থীরা অনলাইনে সফলভাবে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পেরেছে। উপস্থিতিও প্রায় শতভাগ।

উপাচার্য অনলাইন পরীক্ষা কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে বলেন, এটা আমাদের নতুন অভিজ্ঞতা। আমরা নতুন অধ্যায়ে প্রবেশ করলাম। এ অভিজ্ঞতা ভবিষ্যতে দুর্যোগ বা মহামারির মধ্যেও শিক্ষাকার্যক্রম অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রে সহায়ক হবে। এক্ষেত্রে আমরা যে কোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সক্ষম হবো।

তিনি আরও বলেন, করোনা মহামারির কারণে একাডেমিক ক্ষেত্রে যে সময়টা পিছিয়ে আছে তার রিকভারি প্লান করতে হবে। প্রয়োজনে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের সহায়তায় তা পুষিয়ে নিতে হবে।

উপাচার্য সফলভাবে অনলাইন পরীক্ষা কার্যক্রম গ্রহণে ডিন, ডিসিপ্লিন প্রধানসহ পরীক্ষার কাজে নিয়োজিত সকল শিক্ষক এবং আইসিটি সেল, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক দফতরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।
এসময় উপাচার্যের সাথে বিভিন্ন স্কুলের ডিন ও চিফ ইনভিজিলেটর, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত), ডিসিপ্লিন প্রধান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (চলতি দায়িত্ব), জনসংযোগ ও প্রকাশনা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক উপস্থিত ছিলেন।

এবারের অনলাইন পরীক্ষায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নিজেদের ইনস্টিটিউশনাল ইমেইল থেকে গুগল ক্লাসরুম থেকে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে।পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিটে মিনিটের মধ্যে শিক্ষার্থীরা তাদের উপস্থিতি নিশ্চিত করবেন এরপরে ৩৬ মার্কসের দুই সেকশনের নাম্বারের জন্য ১ ঘন্টা ৩০ মিনিট পাবেন।এরপরে পরীক্ষা শেষে ৩০ মিনিটের মধ্যে উত্তর পত্র সাবমিশন করবেন।

খুলনা  বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) শেখ শারাফাত আলী বলেন,পরীক্ষার প্রায় শতভাগ শিক্ষার্থীরা অংশ নিয়েছে। শিক্ষার্থীদের কোন ধরনের সমস্যা মোকাবিলা করেছে কি না এমন প্রশ্নে বলেন,এখন পর্যন্ত কোন ধরনের সমস্যা দেখা দেইনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার(ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস বলেন,বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম পরীক্ষা অনলাইনে সফল ভাবে করার চেষ্টা করেছি।সকল ডিসিপ্লিনে খোজ নিয়ে দেখা গেছে কোন ধরনের তেমন সমস্যা হয়নি। তবে ছোট ছোট ভুল আজকে হলেও পরবর্তীতে অন্য পরীক্ষায় এ ধরনের সমস্যা থাকবে না।