• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২২ জুন, ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮
Bangla Bazaar
Bongosoft Ltd.

আমতলীতে তুচ্ছ ঘটনায় মাদ্রাসা ছাত্রকে পিটিয়ে জখম করল শিক্ষক


আবু সালেহ মুসা, আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি  | বাংলাবাজার প্রকাশিত: জুন ১০, ২০২১, ০৪:০৯ পিএম আমতলীতে তুচ্ছ ঘটনায় মাদ্রাসা ছাত্রকে পিটিয়ে জখম করল শিক্ষক
ছবি: বাংলাবাজার

আমতলীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাদ্রাসা ছাত্রকে পিটিয়ে জখম করেছে শিক্ষক ও মাদ্রাসার সভাপতি। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের উত্তর তক্তাবুনিয়া ইউসুফিয়া রাশিদিয়া হাফিজিয়া নূরানী মাদ্রাসায়।

ভুক্তভোগী ঐ ছেলের নাম রবিউল(১২)। রবিউল ঐ মাদ্রাসার হেফজ শাখার ছাত্র। বুধবার রাতে জুতা নিয়ে দুই সহপাঠীর মধ্যে ঝগড়াঝাটি হয়। উক্ত বিষয়টিকে কেন্দ্র করে বিচারের নামে মাদ্রাসার সভাপতি ও এক শিক্ষক মিলে বাঁশের কঞ্চি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে।

এ ঘটনায় ঐদিন রাত ১২টায় আমতলী থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে শিশুটির বাবা মোঃ দুলাল ফকির।

আহত রবিউল কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমার সহপাঠী নাঈমের সাথে জুতা পায় দেয়া নিয়ে সামান্য কথা কাটাকাটি হয়। এ নিয়ে মাদ্রাসার সভাপতি চৌকিদার ও মাহাবুব স্যার আমাকে বাঁশের ডাল দিয়ে পিটিয়েছে। আমি তাদের হাতে পায়ে ধরেও রক্ষা পাইনি।

শিশুটির বাবা জানান, খবর পেয়ে রাত ১১ টার সময় আমি মাদ্রাসায় উপস্থিত হলে আমার ছেলে আমাকে দেখে হাউমাউ করে কেঁদে ওঠে। তখন আমি দেখি ওর গায়ে মারধর ও আঘাতের অনেক চিহ্ন। আমি এই ঘটনার বিচার চাই। 

আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ আলম হাওলাদার জানান, মাদ্রাসার ছাত্র রবিউলকে পিটানোর ঘটনায় তার বাবা লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনা হবে।