• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮
Bangla Bazaar
Bongosoft Ltd.

৪ দিনেও খোঁজ মেলেনি নিখোঁজ তিন মাদ্রাসা ছাত্রীর


নিজস্ব প্রতিবেদক | বাংলাবাজার প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১, ০৯:৩৩ পিএম ৪ দিনেও খোঁজ মেলেনি নিখোঁজ তিন মাদ্রাসা ছাত্রীর

নিখোঁজের ৪ দিন পেরিয়ে গেলেও এখনো খোঁজ মেলেনি জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার দারুত তাক্বওয়া মহিলা কওমী মাদ্রাসা থেকে নিখোঁজ তিন ছাত্রীর। 

এ ঘটনায় আজ বুধবার সকালে ইসলামপুর থানায় মাদ্রাসার পরিচালকসহ ৪ শিক্ষককে আসামি করে মানবপাচার আইনে মামলা দায়ের করেছেন নিখোঁজ শিক্ষার্থী মনিরা আক্তারের বাবা মনোয়ার হোসেন।

পরে শিক্ষকদের আদালতে সোপর্দ করা হলে তাদের জেল হাজতে পাঠায় আদালত। এদিকে সন্তানরা নিখোঁজ থাকায় ওই তিন ছাত্রীর বাড়িতে চলছে কান্নার রোল, বার বার মুর্ছা যাচ্ছেন তাদের মায়েরা। ইসলামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাজেদুর রহমান জানান, শিক্ষার্থী নিখোঁজের ঘটনায় আটককৃত মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা মো. আসাদুজ্জামান, শিক্ষক ইলিয়াস হোসেন, রাবেয়া ও শুকরিয়া ছাড়াও অজ্ঞাত ৪/৫ জনকে আসামি করে নিখোঁজ ছাত্রী মনিরা আক্তারের বাবা মনোয়ার হোসেন মানবপাচার আইনে মামলা দায়ের করেছেন। 

দুপুরে ওই মামলায় ৪ শিক্ষককে আদালতে সোপর্দ করে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। আদালত ওই ৪ শিক্ষককে জেল হাজতে পাঠিয়ে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর মামলার রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করেন।

ওসি আরও জানান, আটককৃত ওই ৪ শিক্ষককে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তেমন কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব, এন্টি টেররিজম ইউনিটের একটি টিমসহ অন্যান্য সংস্থাও নিখোঁজ ৩ শিক্ষার্থীকে উদ্ধারে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে। আশা করছি দ্রুত তাদের উদ্ধার করা সম্ভব হবে।

উল্লেখ্য, গত রবিবার গোয়ালেরচর ইউনিয়নের বাংলা বাজার এলাকায় দারুত তাক্বওয়া মহিলা কওমী মাদ্রাসা থেকে মীম আক্তার (৯), সূর্যবানু (১০) ও মনিরা আক্তার (১১) নামে দ্বিতীয় শ্রেণির তিন শিক্ষার্থী রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় সোমবার বিকালে মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা মো. আসাদুজ্জামান ইসলামপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

পরে ওই দিন রাতেই পুলিশ মাদ্রাসার সকল শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের হাতে তুলে দিয়ে মাদ্রাসাটি বন্ধ করে দেয়। এ সময় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মাদ্রাসার পরিচালকসহ ৪ শিক্ষককে আটক করা হয়।